Friday, March 9, 2018

রণাঙ্গনের সৈনিক (ফটো পোস্ট)


সিরাজগঞ্জ, ২৪ মার্চ ১৯৭১। ছাত্রী সংগ্রাম পরিষদ ও মহিলা সংগ্রাম পরিষদের বিশাল মিছিলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন (মুখের কাছে হাত গোল করে শ্লোগান রত) সৈয়দা এলিজা শিরাজি, মঞ্জু। আমার ছোটখালা সৈয়দা এলিজা শিরাজি (ডাকনাম মঞ্জু) ছিলেন ১৯৭১ এর রণাংগনের সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক।

সাদাকালো ঐতিহাসিক ছবিতে মুখের কাছে হাত গোল করে শ্লোগান দিতে দেখা যাচ্ছে তাকে।

সেটি সিরাজগঞ্জে ১৯৭১ এর ২৪ মার্চের ঘটনা। মুক্তিযুদ্ধের সূচনালগ্ন। মঞ্জুখালা তখন বিএড কলেজে পড়েন, ছিলেন ছাত্রী সংগ্রাম পরিষদ ও মহিলা সংগ্রাম পরিষদ, সিরাজগঞ্জ মহকুমা (এখন জেলা, তখন সিরাজগঞ্জ ছিল পাবনা জেলার অন্তর্ভুক্ত) কমিটির আহবায়ক।

আগুন ঝরা ওই সকালে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের ছাত্র মিছিলের পাশাপাশি তিনি সব কলেজের ছাত্রীদের সংগঠিত করে বিশাল মিছিলের নেতৃত্ব দিয়ে যোগ দেন মিছিলে।

১৯৭১ এ মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে এই ছবির সূত্র ধরেই পাক সামরিক জান্তা মঞ্জু খালাকে গ্রেপ্তার করার জন্য অনেক অভিযান চালিয়েছে।

খালার বড় ভাই, সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমান শিরাজি, মন্টু মামাও ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের কর্মী। ১৯৭১ এ রাজাকাররা তাকে ঘুমখুন করে। শহীদ মন্টুমামার লাশ খুঁজে পাওয়া যায়নি, তার কোনো ছবিও নেই। তার স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে একটি নীল রংগের তিন ব্যান্ডের ফিলিপস রেডিও খালার কাছে সংরক্ষিত আছে।

মন্টু মামা মুক্তিযুদ্ধের এক অকথিত অধ্যায়।…

#JoyBangla #Joy71 #FF

No comments:

Post a Comment