Saturday, March 12, 2016

‘এফএম-র উচ্চারণ অশালীন’

বিপ্লব রহমান, ঢাকা: এফএম রেডিওগুলো ‘অশালীন ‍উচ্চারণ’ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে দিচ্ছে বলে এর সুদূর প্রসারী নেতিবাচক দিক আছে। এমনটিই মনে করতেন সদ্য প্রয়াত দ্রোহ আর প্রেমের কবি রফিক আজাদ।


এই প্রতিবেদকের সুযোগ হয়েছিল এ বিষয়ে ২০০৭ সালের মধ্য জুলাইয়ে ঢাকার এক ঘরোয়া অনুষ্ঠানে কবির সঙ্গে আলাপচারিতার। সে সময় এ কথোপকথন কয়েকটি কমিউনিটি ব্লগ সাইটে প্রকাশিত হয়। তখন মোবাইল ফোনের সূত্রে এফএম রেডিও জনপ্রিয় হতে শুরু করেছে মাত্র। আর কবির ক্ষোভ ছিল এসব রেডিওর উপস্থাপকদের (আরজে) বিকৃত উচ্চারণ ও ইংরেজি মিশ্রিত ভাষা নিয়ে।

কবি বলেন, ‘বেসরকারি রেডিওর আরজে’রা এ রকম অশ্লীল ভাষায় গারগেল করে বাংলা বলছে কেন? এটিকে এতো হালকাভাবে নিলে চলবে না। আসলে বেসরকারি রেডিও কোম্পানিগুলো লাখ লাখ টাকা ব্যয় করে বাংলা ভাষাকে ধ্বংস করার একটা সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে নেমেছে। আর তারা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে দিচ্ছে এইসব অশালীন বাংলা উচ্চারণ।’

প্রসঙ্গক্রমে রেডিওগুলোর টার্গেট গ্রুপ তরুণ প্রজন্ম বলে চটকদার নতুন কিছু পেয়ে তারা সহজেই এফএম-গুলোর ভাষা রপ্ত করে ফেলছে। এমন অভিমত জানাতে কবি এর সঙ্গে একমত প্রকাশ করেন।

তবে ‘নাগরিক জীবনকে বিনোদনমুখি করার পাশাপাশি বহু বছর পর তারা সঠিক সংবাদে মানুষকে রেডিওমুখি করেছে’—এমন মতের বিরোধিতা করেন তিনি।

রফিক আজাদ বলেন, ‘ওদের এইসব ভালত্বকে ছাড়িয়ে গেছে মন্দত্বের মাত্রা। বাংলা ভাষাকে নৃশংসভাবে একটু একটু করে ওরা হত্যা করছে।’

কিন্তু অতীতে বাংলাভাষাকে হত্যার এমন অনেক চেষ্টা শেষ পর্যন্ত কখনোই সফল হয়নি, এমনকি উর্দু হরফে বাংলা লেখার আজগুবি উদ্যোগও ভেস্তে গেছে। আর বাংলা ভাষা তার গৌরব নিয়ে টিকে আছে দাপটের সঙ্গেই। এমন মতকে সমর্থন জানান কবি।

রফিক আজাদ বলেন, ‘সেটাই তো কথা। কিন্তু রেডিওগুলোর এই সব নোংরামির প্রতিবাদ করা দরকার। এর বিরুদ্ধে সম্মিলিত প্রতিবাদ তো দূরের কথা, একক কোনো প্রতিবাদও তো দেখছি না। আমি নিজেই এইসব নিয়ে লিখবো ভাবছি; আপনিও লিখুন। লেখালেখিতে গণসচেতনতা তৈরি করতে হবে।’

‘আর বাংলাকে বিকৃত করার দায়ে একদিন হয়তো এসব রেডিও স্টেশন ঘেরাও হবে। এই তো সেদিন গণআদালতে গোলাম আজমের ফাঁসির রায় হয়েছে না! তাহলে এ কথা তো ঠিক যে, প্রকৃত দেশপ্রেমিকরা এখনো মরেনি। কিন্তু এখন দরকার সত্যি সত্যি সম্মিলিত প্রতিবাদ-বিক্ষোভ,’…যোগ করেন তিনি।…

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/জেডএইচ/বিআর
- See more at: http://bangla.newsnextbd.com/article223175.nnbd/#sthash.R0NHyFUN.iS1Hz68C.dpuf