Wednesday, September 18, 2013

বাংলা ব্লগের ওপর নয়া খড়্গ

আবারও খড়্গ নেমে এসেছে বিকল্প গণমাধ্যম বাংলা ব্লগের ওপর। দেশের শীর্ষ স্থানীয় ব্লগসাইট আমারব্লগ ডটকম জানাচ্ছে, গত ছয় মাসে অন্তত তিন দফায় তাদের ব্লগ সাইটটি বাংলাদেশে বন্ধ করা হয়েছে।  



ব্লগ সাইটটির নির্মাতা ও আমারব্লগ লিমিটেডের পরিচালক সুশান্ত দাসগুপ্ত এক সংবাদ বিবৃতিতে জানান, আমারব্লগ ডটকম বাংলাদেশের কিছু কিছু আইআইজি থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত সংবাদ পাওয়া গিয়েছে। গত ছয় মাসে এ নিয়ে তৃতীয়বারের মত বাংলাদেশে আমারব্লগ ডটকম বন্ধ করা হলো। গত দুবারের মতো এবারও আমারব্লগ ডটকম কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে কোন সরকারি কিংবা আনুষ্ঠানিক চিঠি পায়নি। ব্লগ কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে অনুসন্ধান করে জানাতে পেরেছে যে বেসরকারি এবং সরকারি ইন্টারনেট প্রভাইডারকে আমারব্লগ ডটকম সম্পূর্ণভাবে ব্লক করবার সরকারি নির্দেশ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমারব্লগ ডটকম কর্তৃপক্ষ এ ধরনের বেআইনি নিষেধাজ্ঞার তীব্র প্রতিবাদ জানায়। বিনা কারণে এ রকমভাবে পিছনের দরজা দিয়ে একটি ব্লগকে বন্ধ করার পিছনে কী অসদুদ্দেশ্য কাজ করছে তা ব্লগ কর্তৃপক্ষ জানেন না। তবে আমারব্লগ ডটকম কোন প্রকার অন্যায্য আবদারের কাছে মাথা নত করবে না, আমারব্লগ ডটকম দেশের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং একইভাবে ব্লগারদের সাংবিধানিক বাকস্বাধীনতার কাছে দায়বদ্ধ। সে দায় পূরণে আমারব্লগ ডটকম কোন অন্যায্য আবদারের কাছে মাথা নত করবে না।’

এদিকে, সংশোধিত তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা বাতিলের দাবিতে বাংলা ব্লগ সাইট, ব্লগাজিন, ফেববুক, টুইটারসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো যখন সোচ্চার, তখন আমারব্লগ ডটকমের ওপর এহেন ব্যবস্থা ব্লগার ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের মধ্যে ব্যপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে জানা গেছে। এই নিয়ে অনলাইনে তারা ক্ষোভ প্রকাশও করছেন। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবাদী ব্লগ পোস্ট দেওয়া হয়েছে আমারব্লগ ডটকম-এর তথ্য কেন্দ্র থেকে। ব্লগাররা সেখানেও গিয়ে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, সংশোধিত তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার মূল কথা হচ্ছেঃ "কোনো ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে ওয়েবসাইটে বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক বিন্যাসে মিথ্যা ও অশ্লীল কিছু প্রকাশ করলে, যা দেখলে বা শুনলে নীতিভ্রষ্ট হতে উদ্বুদ্ধ করে, অন্যের মানহানি ঘটায়, আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটায়, ব্যক্তির ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করে বা কোনো ব্যক্তি বা সংগঠনের বিরুদ্ধে উসকানি দেয় — তা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। কোনো ব্যক্তি এ ধরনের অপরাধ করলে তিনি সর্বোচ্চ ১৪ বছরের ও সর্বনিম্ন সাত বছরের কারাদণ্ডে এবং সর্বোচ্চ এক কোটি টাকার অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।"

মৌলবাদ নিষিদ্ধ তথা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে জনমত গঠনে আমারব্লগ ডটকম অন্তত পাঁচ বছর ধরে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। ব্লগাররা মনে করছেন, এই সাইটটির ওপর দমনমূলক ব্যবস্থা মৌলবাদ ও যুদ্ধাপরাধী মহলকেই শক্তিশালী করবে।

গত ফেব্রুয়ারিতে যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে শাহবাগ গণবিস্ফোরণের সময়ও বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) একই ব্লগ সাইটের কয়েকজন ব্লগারের ইন্টারনেট প্রটোকল (আইপি) ঠিকানাসহ বিস্তারিত তথ্য চায়। এর প্রতিবাদে দেশের প্রধান সারির অন্তত ১০টি বাংলা ব্লগ একযোগে ব্ল্যাক আউট ঘোষণা করে। দেশে- বিদেশে সর্বত্র মুক্তচিন্তা ও শুভ বুদ্ধির অবাধ চর্চার ওপরে এ হেন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয় হাজারো কণ্ঠ